• মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০১:১০ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম:
ফের আসছে নতুন ঝড়, নদীবন্দরকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারী সংকেত ফটিকছড়ি উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলছে, তবে ভোটার উপস্থিতি খুবই কম চৌদ্দগ্রামে রিল্যাক্স পরিবহনের বাস খাদে পড়ে নিহত ৫ নাসিরাবাদ এলাকার মিললো দুই নবজাতকের মরদেহ চট্টগ্রাম থেকে শুরু হয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের হজ ফ্লাইট বাঘাইছড়ি উপজেলার বঙ্গলতলী ইউনিয়নে দুপক্ষের পাল্টাপাল্টি গুলি কর্ণফুলী নদীর মোহনায় প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত যুব ঐক্য পরিষদের সাতকানিয়ার যুগ্ম আহ্বায়ক নির্বাচিত হয়েছেন মিশু দাশ উপজেলা নির্বাচনে মন্ত্রী-এমপির স্বজনদের বিরত রাখা দলের নীতিগত সিদ্ধান্ত : কাদের পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা নিষেধাজ্ঞা তুলে দিয়েছে ভারত

বিশ্বাসঘাতকদের কখনই ক্ষমা করবেন না : ভ্লাদিমির পুতিন

নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ : রবিবার, ২৫ জুন, ২০২৩

চট্টলবীর ডেস্ক : রাশিয়া ও ওয়াগনার গ্রুপের মধ্যকার চলমান সংকটকে একটি ‘প্রকৃত দ্বিধা’ বলে অভিহিত করেছেন সিএনএনের সাবেক মস্কো ব্যুরো প্রধান জিল ডগার্টি। ওয়াগনার গ্রুপের প্রধান ইয়েভজেনি প্রিগোজিনের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, যদিও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন প্রিগোজিনকে সরে যেতে বলেছেন। কিন্তু তিনি (পুতিন) বিশ্বাসঘাতকদের ক্ষমা করেন না।
মার্কিন নিউজ চ্যানেল সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ডগার্টি বলেন, যদিও প্রিগোজিনকে বেলারুশে যেতে বলেছেন পুতিন। কিন্তু ক্রেমলিনের কাছে ওয়াগনার প্রধান ‘বিশ্বাসঘাতকই’ রয়ে গেছেন।

তিনি জানান, ‘আমি মনে করি, এটি একটি সত্যিকারের দ্বিধা। প্রিগোজিন যেখানেই থাকুন না কেন, যতক্ষণ পর্যন্ত তিনি নিজের মতো আচরণ করছেন, তার কোনো ধরনের সমর্থন আছে, ততক্ষণ তিনি হুমকিস্বরূপ। ’

‘আমি মনে করি, এই ঘটনা পুতিন কখনই ক্ষমা করবেন না। ’

ডগার্টি বলেছেন, ‘রোস্তভ-অন-ডনের সড়কে যখন অশান্তি হয়েছিল, তখন পুতিন মস্কোয় অবস্থান করছিলেন। ওইসময় তাকে একজন শক্তিশালী নেতার মতো দেখায়নি। পুতিনকে সত্যিই দুর্বল দেখাচ্ছিল। ’

যখন বাইরের কেউ রাশিয়ার নেতৃত্ব পতনের চেষ্টা করছে, তখন দেশটির জনগণ উল্লাস করছে- এ বিষয়ে সিএনএনের সাবেক এই সংবাদকর্মী জানান, ‘এটি যাই হোক না কেন, পুতিনের জন্য সত্যিই খারাপ খবর। ’

প্রসঙ্গত, ওয়াগনারের সৈন্যরা শনিবার ভোরে রোস্তভ-অন-ডন শহরে প্রবেশ করে এবং আঞ্চলিক সামরিক কমান্ড দখল করে নেয়। শনিবারের বিদ্রোহে দিনের বেশিরভাগ সময়, দক্ষিণ রাশিয়ান শহরটি ওয়াগনারের বিদ্রোহের কেন্দ্রে ছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ