• মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৬:৫৪ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]

অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি, মূলহোতা ভুজপুরে আটক

নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ : মঙ্গলবার, ২ মে, ২০২৩

স্টাফ রিপোর্টার : কর্ণফুলির উপজেলা এলাকার এক যুবককে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ে জড়িত চক্রের মূলহোতাকে আটক করেছে র‌্যাব।
গত ১ মে সোমবার ভোরে ভুজপুরের রহমতপুর এলাকায় রাবার বাগানে অভিযান চালিয়ে অপহরণ চক্রের মূলহোতা মো. মামুনকে (৩৭) আটক ও অপহৃত ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়। আটক মো. মামুন মীরসরাই করেরহাটের আব্দুল ছোবহানের ছেলে। মঙ্গলবার ২ মে সকালে র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নুরুল আবছার বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানিয়ে বলেন, অপহৃত ভিকটিম নূর হাশেম জোরারগঞ্জ থানার অর্থনৈতিক অঞ্চলের একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। সে সুবাধে আসামি মো. মামুন ও মো. জসিমের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। গত ২৮ এপ্রিল দুপুরে জসিম তাকে ফোন করে করেরহাট এলাকায় যাওয়ার জন্য বলে। দেখা করতে ভিকটিম করেরহাট গেলে এক সিএনজি অটোরিকশার ড্রাইভার তাকে ভুজপুরের কৈলারছড়া এলাকায় জসিমের বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে মামুন এবং অজ্ঞাত ৪-৫ জন মিলে ভিকটিমকে অপহরণ করে ভুজপুরের ভারতীয় সীমান্তবর্তী একটি অজ্ঞাত এলাকায় নিয়ে যায় এবং শারীরিক নির্যাতন শুরু করে। তিনি আরও বলেন, অপহরণকারীরা ভিকটিমের পরিবারের কাছে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে এবং টাকা না দিলে ভিকটিমকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এছাড়া অপহরণকারীরা ভিকটিমকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে তার পরিবারের লোকদেরকে মোবাইলের মাধ্যমে তা শুনাতো। ভিকটিমের পরিবার তাকে উদ্ধারে র‌্যাব-৭ এ অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ পেয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করে র‌্যাব। সোমবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভুজপুরের রাবার বাগানে অভিযানে চালিয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার ও অপহরণের মূলহোতা মামুনকে আটক করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ